আজ রবিবার। ৩রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ। ১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ। ২১শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি। এখন সময় দুপুর ২:১১

ক্রমাগত ছিনতাইয়ের শিকার হাবিপ্রবির শিক্ষার্থী:উদাসীন প্রশাসন

ক্রমাগত ছিনতাইয়ের শিকার হাবিপ্রবির শিক্ষার্থী:উদাসীন প্রশাসন
নিউজ টি শেয়ার করুন..

আজিজুর রহমান,হাবিপ্রবি প্রতিনিধি:

“আমি টিউশনি পড়িয়ে যে টাকা পাই তা দিয়েই পুরো মাস চলি।দিনাজপুর থেকে ফেরার পথে মহারাজা মোড় নামক স্থানে অটো থামিয়ে আমার সব ওরা নিয়ে গেল। নতুন মাস, এই মাসটা আমি কিভাবে চলব? এই ঘটনা শুধু এবারই প্রথম আমার সঙ্গে হয়নি, এর আগেও অনেকজনের সঙ্গে ঘটেছে। এভাবে আর কত দিন?’ বিষণ্ন মনে কথাগুলো বললেন হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) ভেটেরিনারি এন্ড অ্যানিমেল সায়েন্স অনুষদের লেভেল-৩,২য় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী প্রীতম।

শুক্রবার(০৩ মে) দুপুর ১২ টার পর দিনাজপুর শহর থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ফেরার পথে শহরের মহারাজা মোড় মহাসড়কে মধ্যবর্তী রাস্তায় ছিনতাইয়ের শিকার হন তিনি।গত ও চলতি বছর প্রীতমের মতো আরো অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী ও পথচারী এই মহাসড়কে ছিনতাইয়ের শিকার হলেও এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়েছে চক্রটি। ফলে প্রতিনিয়ত সেখানে ছিনতাইয়ের কবলে পড়ছে শিক্ষার্থী ও পথচারীরা। সম্প্রতি ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে আহত ও অটো থেকে ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়ার সময়ও গুরুতর আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী। দীর্ঘদিন ধরে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটলেও এর বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কিংবা পুলিশ প্রশাসন কার্যকর ব্যবস্থা নিতে পারেনি।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা জানান,দিনাজপুর গোর-এ শহীদ ময়দান বড়মাঠ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক পর্যন্ত ঢাকা-দিনাজপুর মহাসড়কের এই অংশটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে। এ কারণে ছিনতাই ঘটলে পুলিশকে জানায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।তবে বিশ্ববিদ্যালয় ও পুলিশ প্রশাসন থেকে আশ্বাস দেয়া হলেও কার্যত ফলাফল শূন্য।

এবিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. খালিদ হোসেন বলেন, আমার কাছে এখন কোনো মৌখিক বা লিখিত অভিযোগ আসেনি।কিন্তু ছিনতাই প্রতিরোধের বিষয়ে পুলিশ প্রশাসনকে জানিয়েছি। তারা রাস্তায় ক্লোজড সার্কিট(সিসি) ক্যামেরা শহরের বিভিন্ন স্থানে লাগাবেন এবাং বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


নিউজ টি শেয়ার করুন..

সর্বশেষ খবর

আরো খবর