আজ রবিবার। ৩রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ। ১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ। ২১শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি। এখন সময় সকাল ৬:০৮

লক্ষ্মীপুরে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

ত্রিশালে দশ বছরের শিশুকে ধর্ষন
নিউজ টি শেয়ার করুন..

রাকিব আল হাসান, লক্ষ্মীপুর সংবাদদাতা :

লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুরে নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে রাতের আধাঁরে বসতঘরে ডুকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে আলমগীর হোসেন (২২) নামের এক বখাটে যুবকের বিরুদ্ধে। সৃষ্ট এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও এলাকাবাসীর মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

সূত্রমতে, শনিবার (১১ মে) রায়পুর উপজেলার ৮ নং দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নে নবম শ্রেণির এক ছাএীকে রাতের আধাঁরে বসতঘরে ডুকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে একই ইউনিয়ন ৭নং ওয়ার্ড চরকাচিয়া গ্রামের মো. মনছুর নেপাল এর ছেলে আলমগীর হোসেন এর বিরুদ্ধে।

সৃষ্ট এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থী, অভিভাবক এবং এলাকাবাসীর মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। দ্রুত তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে উপজেলা শিক্ষা অফিসের পক্ষ থেকে তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় বিভিন্ন সূত্রমতে, শনিবার (১১ মে) দিনগত রাতে ওই স্কুল শিক্ষার্থীর বসতঘরে ডুকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে অভিযুক্ত আলমগীর হোসেন। এ সময় মেয়েটি চিৎকার করলে ধর্ষক মনছুর নেপাল এর ছেলে আলমগীর হোসেন কৌশলে সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

পরে ধর্ষণের শিকার শিক্ষার্থী তার বাড়ির অভিভাবকদের বিষয়টি জানায়। এর পর শিক্ষার্থীর পিতা-মাতাসহ অন্যান্য অভিভাবক বৃন্দ এলাকার মুরুব্বিদের নিকট এ বিষয়ে অভিযোগ করেন।

এদিকে রায়পুর উপজেলা শিক্ষা অফিসার আব্দুল হাকিম ও সহকারী শিক্ষা অফিসার মোস্তাফিজুর রহমানকে যৌন হয়রানির বিষয়টি জানানো হয়েছে।

এ ছাড়া সরেজমিনে তদন্তের ঘটনায় সতত্য পাওয়া গেছে মনছুর নেপাল এর ছেলে আলমগীর হোসেনের (২২) বিরুদ্ধে। এই বিষয়টি তিনি গণমাধ্যম কর্মী ও স্থানীয়দের জানিয়েছেন।

এদিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে অভিযুক্ত তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে আশা করেছেন এলাকার মুরুব্বিরা। মেয়েটি এল কে এইচ হাই স্কুলে নবম শ্রেণিতে করে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান এবং ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বলেছেন, যদি এ ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায় তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


নিউজ টি শেয়ার করুন..

সর্বশেষ খবর

আরো খবর