আজ শনিবার। ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ। ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ। ৯ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি। এখন সময় বিকাল ৫:১৫

নোয়াখালীতে ৩য় শ্রেনীর স্কুল ছাত্রী ধর্ষন

নোয়াখালীতে ৩য় শ্রেনীর স্কুল ছাত্রী ধর্ষন
নিউজ টি শেয়ার করুন..

মোঃইব্রাহিম নোয়াখালী প্রতিনিধি : সেনবাগে ৩য় শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রী ধর্ষনের শিকার হয়েছে। দুপুরে স্হানীয় জনতা রক্তাক্ত অবস্হায় ভিকটিম ও ধর্ষক রাজন(২৫) কে আটক করে সেনবাগ থানায় আনার পথে ছাতারপাইয়া বাজার থেকে ধর্ষককে ছিনতাই করে নিয়ে যায় সন্ত্রাসী মিজান ও আলমগীর। ৯ বছরের শিশুকে প্রথমে সেনবাগ সরকারী হাসপাতাল সন্ধ্যায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে স্হানান্তর করা হয়েছে। সেনবাগ থানা পুলিশ ধর্ষক রাজনকে গ্রেফতারে ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করছে। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: শাহজাহান শেখ সেনবাগে এসে ভিকটিম ও পরিবারের সাথে কথা আইনগত ব্যবস্হা নেয়ার নির্দেশদিয়েছেন।

ভিকটিমের মা জানান, স্কুল ছাত্রী দুপুর দেড়টায় ছুটি নিয়ে বাড়ী ফেরার পথে বসন্তপুর বাজারে একই এলাকার সফিকুর রহমানের বখাটে পুত্র সিএনজি চালক রাজন (২৫) গাড়ীতে তুলে নেয়। বাজার থেকে ৫শ গজ দক্ষিণে নুর নবীর গ্যারেজে শিশুটিকে পাশবিক নির্যাতন চালায়। এতে শিশুটি মারাত্বক অসুস্হ হয়ে পড়ে।শিশুটির রক্তাক্ত জখমে ডাক চিৎকার শুনে স্হানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করেন। পরে ধর্ষক রাজনকে স্হানীয়জনতা আটক করে সেনবাগ থানায় নেয়ার পথে ছাতারপাইয়া বাজারে ধর্ষকের বন্ধু স্হানীয় গাবতলী এলাকার বখাটে দু সিএনজি চালক মিজান ও আলমগীর ব্যারিকেড দিয়ে রাজনকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় সেনবাগ থানার এসআই গৌর সাহার নেতৃত্বে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক রাজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন। ৯ বছরের ভিকটিম স্কুল ছাত্রী স্হানীয় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেনীতে অধ্যয়ন করে।

সেনবাগ থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। সহযোগীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

নিউজ টি শেয়ার করুন..

সর্বশেষ খবর

আরো খবর