আজ রবিবার। ৩রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ। ১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ। ২১শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি। এখন সময় দুপুর ২:০৫

 কবি~বিদ্যুৎ ভৌমিক-এর হৃদয়তান্ত্রিক কবিতা

 কবি~বিদ্যুৎ ভৌমিক-এর হৃদয়তান্ত্রিক কবিতা
নিউজ টি শেয়ার করুন..

~স্বপ্ন ছিঁড়ে জেগে ওঠে পাতার ছায়ারা~

*****************************

~বিদ্যুৎ ভৌমিক~

********************                                                                          কবি~বিদ্যুৎ ভৌমিক প্রসঙ্গে কিছু কথা // ডঃ আদিত্য বসু //                                                                       ****************************************                                                                            যিনি একমাত্র কবিতাকেই উপজীব্য করেই বাংলা সাহিত্যের দরবারে একজন                          প্রখ্যাত ও জনপ্রিয় কবি হিসেবে বাঙালি মননে ঠাই পেয়েছেন , তিনি আমাদের                        প্রিয় কবি~বিদ্যুৎ ভৌমিক । তিনি এই মুহূর্তে এখন পত্র- পত্রিকার পাতায় ও                      পাঠক মহলে বহু চর্চিত এবং আলোচিত । কবি~সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় তাঁর কবিতা                      গ্রন্থ কথা না রাখার কথা ‘– পাঠ করে উক্তি করেছেন ,– আমার চেনা প্রিয় ও                      ভালোলাগার কবি হিসাবে কবি~বিদ্যুৎ ভৌমিক অন্যতম । এক কথায় কবি বিদ্যুৎ                    কবিতা পাগল বলা যায় । কবিতার জন্য তিনি প্রচুর সময় দেন , এবং সেই কবিতা                      কবিকে শ্রেষ্ঠ কবি হিসাবে পাঠকের মনের মধ্যে আসন পেতে বসিয়ে রাখেন । এটা                  কবি~বিদ্যুৎ ভৌমিকের জনপ্রিয় হয়ে ওঠার গল্প । ~ কথা না রাখার কথা ‘– শীর্ষক              কবির কাব্যগ্রন্থ- টি যখন হাতে পেলাম তখন মনে-মনে কবি~বিদ্যুৎ ভৌমিকের                    প্রতি আমার ভীষণ রাগ হয়েছিল । রাগ হবার মুল কারণ , আমার কবিতা কেউ কথা                    রাখেনি ‘– নামক নামী  কবিতা- টি নকল ভেবে । পরে অবশ্য কবি~বিদ্যুৎ- এর ওই                  গ্রন্থটি সম্পূর্ণ পাঠ করার পর আমার ভ্রান্ত ধারণা নিমেষে পাল্টে গেল ।  এটাই-                আমার প্রথম কবি~বিদ্যুৎ ভৌমিককে ও তাঁর কবিতাকে আবিষ্কার । এক কথায় তাঁর              কাব্যগ্রন্থটি অনবদ্য । প্রত্যেকটি কবিতাই অমোঘ মন্ত্রের উচ্চারণ বলা যেতে                  পারে । এই তরুণ কবিকে আমার শ্রদ্ধা ও অভিনন্দন জানাই ‘– । যাই হোক , কবি ও                কবিতা প্রসঙ্গে আমেরিকা- তে বসে আমি অনেক জায়গায় লিখেছি । কবি বিদ্যুৎ ভৌমিক এবং                  তাঁর কবিতা আমার চোখে এই সময়কার সেরা নমুনা বলা যায় । ভারতের পশ্চিমবঙ্গ                  নামক হুগলীর শ্রীরামপুরের সন্তান এই আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন কবি~ বিদ্যুৎ                ভৌমিক যুগ- যুগ বেঁচে থাকুন , বেঁচে থাক তাঁর নানান বর্ণের ক-বি-তা । এই  জনপ্রিয়                কবিকে আমার অভিনন্দন রইল — আদিত্য বসু  সাংবাদিক  USA //                                      ******************************************************************                                                                                                                                      প্রখ্যাত কবি~বিদ্যুৎ ভৌমিক-এর ক-বি-তা                                                                                                                                                                                                                                        ~স্বপ্ন ছিঁড়ে জেগে ওঠে পাতার ছায়ারা~                                                                                                                                                                                                                                           =============================

দূর থেকে দূরে উর্দ্ধবাহু ঘাসকে ডাকে প্রদ্ভিন্ন তরঙ্গের কাছে

শৈলীর ভিতর যেন সুন্দর করে ওঠা – নামা

মৃত্যুর স্পর্শ ক’রে সীমানায় চেয়ে আছে ফিরিঙ্গি ডাঙার চাঁদ ****

জাগবার নরম আনন্দে স্বপ্ন ছিঁড়ে জেগে ওঠে পাতার ছায়ারা

আরো কত মুখরেখা  !

 

শিশির শান্ত চোখ প্রদীপ নিভিয়ে বলে ওঠে  ; ভোর হ’লো *****

ভাঙা বাটির উপর সূর্য গভীর

চেয়ে দেখে আমার পঞ্চাশ বছর এগিয়ে আসছে, —

ময়দানে বক্তব্য ফুরালে শ্রুতি – বিনোদন থেমে যাবে

জ্যামিতিক মুখগুলো অতলে দাঁড়াবে রোজ তৈমুরের মতো ,

অথচ কয়লা ধুয়ে উঠে আসবে না শ্বেতাঙ্গ সিন্ধুসারস  !

 

মুখশ্রী বেঁকিয়ে চন্দ্রমুখী স্বতন্ত্র হাঁটে অনাবিল পথে

মেঘের আড়ালে *****

ভিজে ছাতার ভিতর হিজল কান্না স্থির ,

তবুও নিমপাখি শোনায় ব্যথা ভোলার কথা

ভাসানের গানে বইচির বনে একা মুখ লুকিয়ে কেঁদেছি প্রতিদিন  !

 

এই দেখ ব্যথার চোখ ধুই অমোঘ অশ্রুতে

হৃদয় ছেনে শুনি তোমার নিঃশ্বাস ,

চেয়ে দেখ বসুন্ধরা ; যেন আমার পঞ্চাশ বছরের হামাগুড়ি ****

মসৃণ মাছারাঙা ধরেছে শিকার, জলের ভেলায় চেপে ভেসে গেছি

নীলকণ্ঠ পত্রনবীশের কাছে গল্প শুনতে  !

 

এখানে অভিশাপ প্রচুর, এই ঘরে স্মৃতি – ধ্বনি বিদেহী চতুর

নগ্ন শৈশব নিয়ে পেরিয়ে যাই সন্ধ্যার বকুল বাগান *****

এসো আমার মতো নগ্ন সমাধিতে  ;

মগ্ন স্বেচ্ছায় ঠেলি কবিতার কবোষ্ণ লাইন

ভিতর থেকে দেখি অদূরে-ই আমার ঈশ্বর নির্ঘুম যাপন করছেন


নিউজ টি শেয়ার করুন..

সর্বশেষ খবর

আরো খবর