আজ শনিবার। ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ। ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ। ১৬ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি। এখন সময় রাত ৪:১৯

জেলা ছাত্রলীগের অনুমোদন ছাড়াই চলছে নরসিংদী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম

জেলা ছাত্রলীগের অনুমোদন ছাড়াই চলছে নরসিংদী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম
নিউজ টি শেয়ার করুন..

নরসিংদী প্রতিনিধি :

জেলা ছাত্রলীগের অনুমোদন ছাড়াই চলছে নরসিংদী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম।জানা গেছে, নরসিংদী জেলা ছাত্রলীগের অন্তর্গত নরসিংদী সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন দেয়নি জেলা ছাত্রলীগ। তবে শিব্বির আহমেদ নিজেকে সভাপতি ও অতুল সাধারন সম্পাদক দাবি করে করে সকল সাংগঠনিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানা যায়।

জানা যায়, কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক দাবি করা অতুল কলেজ অধ্যক্ষকে লাঞ্চিত করার অভিযোগ রয়েছে। এই ঘটনায়, ভিবিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ করা হয়। ভিডিও ফুটেজ থেকেও দেখা যায়,অতুল কলেজ অধ্যক্ষে লাঞ্চিত করার মুহুর্থ। অধ্যক্ষে কে হামলার ভিডিও ফুটেজ থেকে দেখা যায়, অতুলের সহযোগী আদর সহ, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি দাবি করা শিব্বির আহমেদও অধ্যক্ষের উপর হামলা চালায়। জানা যায়, অতুল প্রকাশ্যে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ঘুরাফেরা করে।

নাম না বলা শর্তে, নরসিংদী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের এক নেতা জানান, অতুল অস্ত্র ব্যবসার সাথে জরিত।সে দীর্ঘদিন ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিল।
এ বিষয়ে নরসিংদী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি দাবি করা শিব্বির আহমেদ জানান, কলেজ কমিটি সম্মেলনের মাধ্যমে হয়েছে।সেখানে সম্মেলন চলাকালীন সময়ে জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক রিমন মঞ্চ থেকে নেমে চলে যান।পরবর্তীতে নজরুল ইসলাম হিরু এমপি (সাবেক প্রতিমন্ত্রী) নিজে মাইকে কমিটি ঘোষনা দেন।


ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ছাত্রলীগের কমিটি ছাত্রলীগ ছাড়া অন্য কোনো সংগঠনের নেতা অনুমোদন দিতে পারে না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যেখানে মন্ত্রী সাহেব (নজরুল ইসলাম হিরু এমপি, সাবেক প্রতিমন্ত্রী) কমিটি ঘোষনা দিয়েছে সেখানে প্রেস রিলিজের দরকার কী।
নরসিংদী জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আহসানুল হক রিমন জানান, তখনকার কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সোহাগ ভাই সাধারন সম্পাদক জাকির ভাই নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল ছাত্রদল-শিবির থেকে যেন কেউ ছাত্রলীগে ঢুকতে না পারে। আর অতুল (নরসিংদী সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক দাবি করা ব্যক্তি) সে সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সম্মেলনের ১ মাস আগেও ছাত্রদল করত তাও আবার এই ক্যাম্পাসেই।সে কারনে আমি কমিটি অনুমোদন দেয়নি।


জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইসহাক খলিল বাবু এ বিষয়ে বলেন, আমার সাধারন সম্পাদক রিমন সে কমিটি অনুমোদন দেয়নি।আমি কমিটি অনুমোদন দেই। সংগঠনের কার্যক্রম চলছে কিনা এখনো সে বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, জি মোটামুটি কার্যক্রম চলছে।


এ বিষয়ে জানতে নরসিংদী সদর আসনের এমপি নজরুল ইসলাম হিরু এমপি কে একাদিক বার ফোন করা হলেও তিনি ফোন ধরেন নি।
বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি রেওজানুল হক চৌধরী শোভন ও সাধারন সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর সাথে ২ দিন যাবৎ যোগাযোগ করার চেষ্ঠা করা হলেও যোগাযোগ করা যায় নি।
প্রসঙ্গত ২০১৮ সালের ১৬ মার্চ নরসিংদী সরকারি কলেজ প্রাঙ্গণে কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

নিউজ টি শেয়ার করুন..

সর্বশেষ খবর

আরো খবর