আজ রবিবার। ৩রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ। ১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ। ২১শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি। এখন সময় সকাল ৬:১৪

‘আমার কলিজায় আগুন জ্বলছে’ :নুসরাতের বাবা

‘আমার কলিজায় আগুন জ্বলছে’ :নুসরাতের বাবা
নিউজ টি শেয়ার করুন..

আমার একমাত্র মেয়ে নুসরাত। সেইদিন সে পরীক্ষা দিতে গিয়েছিল, আর তার সঙ্গে এমন ঘটনা ঘটেছে। আমার ভেতরে কি চলছে তা ভাষায় প্রকাশ করতে পারছি না। মেয়ে হারানোর বেদনায় কলিজায় দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে।’
বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের সামনে এভাবেই কান্নাজড়িত কণ্ঠে কথাগুলো বলছিলেন, ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসার শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফির বাবা কেএম মুসা।


কেএম মুসা বলেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। সকলেই আমার পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। আপনাদের সবার কারণে আমার মেয়ের এই পরিণতির কথা সবাই জানতে পেরেছে।’
এই কথাগুলো বলতে গিয়ে কান্নায় বার বার বাক্যরুদ্ধ হয়ে পড়ছিলেন নুসরাতের বাবা কেএম মুসা। পরে তিনি নিজেকে সামলিয়ে আবারও বলেন, সেই দিন আমার মেয়ে পরীক্ষা দিতে গিয়েছিল, কিন্তু সেই দিনই আমার একমাত্র মেয়ের সঙ্গে এ ঘটনা ঘটেছে। আমি ভাষা হারিয়ে ফেলেছি, কি বলব জানি না। আমাদের ভেতরে যে কি চলছে তা আমি বুঝাতে পারছিনা। আমার কলিজায় দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে।
দোষীদের বিচারের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ইতোমধ্যে আমার মেয়ের বিষয়ে সব কিছুই প্রকাশিত হয়েছে। আমার দাবি দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী সুষ্ঠু ও ন্যায্য বিচার যেন হয় দোষীদের।

উল্লেখ্য ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসায় আলিম পরীক্ষার্থী ছিলেন নুসরাত। এ প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা নুসরাতকে তার কক্ষে নিয়ে যৌন নিপীড়ন করেন- এমন অভিযোগে গত ২৭ মার্চ অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে মামলা করেন নুসরাতের মা শিরিন আক্তার। ছাত্রীর স্বজনদের অভিযোগ, মামলা প্রত্যাহারে রাজি না হওয়ায় অধ্যক্ষের পক্ষের লোকজন নুসরাতের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেন।

নিউজ টি শেয়ার করুন..

সর্বশেষ খবর

আরো খবর