আজ শনিবার। ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ। ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ। ১৬ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি। এখন সময় রাত ৪:৫৬

সাংবাদিকদের সমালোচনায় শিশির

সাংবাদিকদের সমালোচনায়  শিশির
নিউজ টি শেয়ার করুন..

বিশ্বকাপের জার্সি পরে সোমবার ফটোসেশন করেছেন বাংলাদেশের বিশ্বকাপ দলের ক্রিকেটাররা। ওই ফটোসেশনে থাকার কথা ছিল আইপিএল খেলে দেশে ফেরা সাকিব আল হাসানের। কিন্তু তিনি সেখানে উপস্থিত ছিলেন না। বিসিবি’র কর্মকর্তা, কোচিং স্টাফরাও ছিলেন সেখানে। বিসিবি সভাপতি সাকিবকে না পাওয়ায় তাই হতাশ বলে জানান।

স্ট্যাটসটি নিম্মরুপ :

‘সাংবাদিকদের নিয়ে আমার সত্যিই কিছু বলার নেই। কেন তারা সাকিবকে এতো অপছন্দ করেন। দোষ সম্ভবত আমাদেরই। আমরা তাদের রাতের বা দুপুরের খাবারের দাওয়াত দেইনি, কিংবা ঘণ্টার পর ঘণ্টা তোষামোদ করে দলের ভেতরের খবর দিইনি।’

‘ছোটবেলা থেকে সাকিব বিকেএসপিতে পরিশ্রম করেছে। ক্রিকেটে মন দিয়েছে, অভিনয় করতে শেখেনি। মানুষের সহানুভূতি নিয়ে খেলা করাও শেখেনি! তবে তার শেখা উচিত ছিল। অভিনয় শেখেনি বলেই সে হয়তো ইতিবাচক মানুষ না। সাকিব নিজের ভালো কাজগুলো ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে মানুষকে খুশি করে আগ্রহের কেন্দ্রে থাকতে চায় না!’

এখন কথা হলো, কেন সাকিব বিশ্বকাপের ফটোসেশনে ছিল না। অংশ নেওয়ার ইচ্ছা সত্ত্বেও সে এটা মিস করেছে। তাকে যে মেসেজ দেওয়া হয়েছিল সেটা বুঝতে ভুল বুঝেছে সে। পরে যথাযথ কতৃপক্ষের কাছে ক্ষমাও চেয়েছে। কিন্তু আমরা দুঃখিত যে তা প্রমাণের জন্য আমাদের কাছে কোন ভিডিও নেই!’

‘দ্বিতীয়ত একটি টিভির দু’জন সাংবাদিক তাদের আলোচনায় সাকিবকে নিয়ে আজেবাজে কথা বলেছেন, “সে বিখ্যাত হওয়ার জন্য করছে”। আরে ভাই আমি ভুল না করলে, এটাই ওর সবচেয়ে কম দরকার। ব্যাপার আসলে উল্টো, আপনারা (সাংবাদিক) তাকে নিয়ে নেতিবাচক কথা বলে বিখ্যাত হতে চাইছেন। কারণ এটাই ব্যবসা, এ ব্যবসায় আপনাদের লাভ বেশি। নিজেরও বিখ্যাত হওয়ার সুযোগ!’

‘যদি তার আচরণ নিয়ে প্রশ্ন থাকে, যেকোনো ক্রিকেটারকে ব্যক্তিগতভাবে জিজ্ঞেস করুণ। তার মাঠ ও মাঠের বাইরের জীবন নিয়ে খবর নিন। বিশ্বকাপ এগিয়ে আসছে। তাকে বিশ্বকাপে যেতে দিন। তখন আপনারা আলাপ করার জন্য অনেক বিষয় পাবেন বলেই আমার ধারণা!’


নিউজ টি শেয়ার করুন..

সর্বশেষ খবর

আরো খবর