আজ শনিবার। ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ। ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ। ৯ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি। এখন সময় বিকাল ৪:৩২

দূর্নীতির দ্বায়ে আওয়ামী লীগ সম্পাদকের স্ত্রী বদলি : বদলি ঠেকাতে অপচেষ্ঠা

দূর্নীতির দ্বায়ে আওয়ামী লীগ সম্পাদকের স্ত্রী বদলি : বদলি ঠেকাতে অপচেষ্ঠা
নিউজ টি শেয়ার করুন..

নরসিংদী জেলার শিবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সামসুল আলম ভূইয়া রাখিলের ২য় স্ত্রী সুরাইয়া জেসমিন। তিনি বহুদিন যাবত পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি শিবপুর জোনাল অফিসে বিলিং সুপারভাইজার হিসেবে কর্মরত। জানা যায়, স্বামী থানা আওয়ামীলীগের সম্পাদক হওয়ায় তিনি বহুদিন যাবত নিজ জেলায় কর্মরত আছেন। অতীতে বদলি করার চেষ্টা করেও সম্ভব হয়নি।

তাছাড়া তিনি ক্ষমতার জোরে পল্লী বিদ্যুৎ থেকে বিভিন্ন ভাবে বহু টাকা আত্মসাত করেছেন। তিনি নিয়মিত কর্মক্ষেত্রে যান না। জানা যায়, বাড়িতে বসেই তিনি তার কর্ম পরিচালনা করেন।
শিবপুর জোনালে কর্মরত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন মুঠোফোনে জানান, ‘সুরাইয়া মেডাম ঘরে বসেই অফিস করেন,তার বিরুদ্ধে কেউ কোন কথা বলতে পারে না।এমনকি অফিসে উনার উর্ধ্বতন কর্মকতারাও তার ভয় তটস্ত থাকেন সব সময়।কারন তার স্বামী আওয়ামীলীগের অনেক বড় নেতা,সবাই তাকে ভয় পায়।তাকে কেউ কিছু বললে অফিসের বাইরে তাকে হেনস্তার শিকার হতে হয়।’


বদলির ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন,’ যদিও তার বাড়ি শিবপুরে,তারপরও তিনি ক্ষমতার জোরে বাড়িতে থেকেই চাকুরী করছেন। কেউ কিছু বলার নেই তাকে। যেহেতু তার স্বামী অতীতে জেলা ছাত্রলীগের সেক্রেটারি ছিলেন তাই তার সমগ্র জেলায় লোকজন রয়েছে। সমগ্র নরসিংদী জেলাই তার হাতের কন্ট্রোলে। নরসিংদী সদর থেকে কয়েকবার অন্য জোনালে বদলি করার সিদ্ধান্ত নিলেও তা আর হয়ে উঠেনি। অন্য জোনালে দিলে আর কি হবে,কিছুদিন পর আবার চলে আসবে শিবপুর। অতীতে অফিস থেকে গোপনে উদ্বোগ নেয়ার চেষ্টা করলেও তা সম্ভব হয়নি।

তবে এবার হয়ত (নিজ জেলা) থাকা ইস্যুটি কারনে BREB থেকে নারায়ণগঞ্জে বদলি করা হয়েছে। তবে যে পরিমান তদবির চলছে মনে হয় না বদলি করা যাবে। অন্যদিকে এও জানতে পেরেছি আমাদের BREB এর চেয়ারম্যান স্যার অনেক বেশি কড়া, কোন অন্যায় তদবির উনি গ্রহণ করেন না। যদিও অনেক বড় পর্যায় থেকে তদবির করাচ্ছে তারা কিন্তু আমার মনে হয় কোন তদবিরই এবার আর কাজ হবে না।

সুরাইয়া জেসমিনকে বদলির বিষয়ে শিবপুর জোনালের ডিজিএম আবুল কালাম আজাদের সাথে কথা হলে তিনি কি বিষয়ে বদলি করা হয়েছে তা বলতে রাজি হননি এবং বদলি পরবর্তী কোন তদবির করা হয়েছে কিনা তিনি জানেন না। তবে তিনি বলেন,’ আমি যতটুকু জেনেছি BREB থেকে তাকে বদলি করা হয়েছে।তবে কারো কাছে কোন তদবির এসেছে কিনা এ বিষয়ে আমি অবগত নয়।


এ ব্যাপারে BREB এর চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিনের সাথে কথা বলার চেষ্টা করার জন্য তার মুঠোফোন একাধিকবার ফোন করে তাকে পাওয়া যায়নি।


নিউজ টি শেয়ার করুন..

সর্বশেষ খবর

আরো খবর