আজ রবিবার। ৩রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ। ১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ। ২১শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি। এখন সময় সকাল ৬:২৮

প্রসবের সময় নবজাতকের মাথা ছিঁড়ে ফেলল হাতুড়ে ডাক্তার

প্রসবের সময় নবজাতকের মাথা ছিঁড়ে ফেলল হাতুড়ে ডাক্তার
নিউজ টি শেয়ার করুন..

বেসরকারি একটি হাসপাতালে প্রসবের সময় নবজাতকের দেহ থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছেন এক হাতুড়ে চিকিৎসক।

ঘটনাটি ঘটেছে গত শনিবার গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলা সদরের বোনারপাড়ায়। প্রসূতিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় গাইবান্ধা শহরের একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করেছে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়।

সিভিল সার্জন ডা. এবিএম আবু হানিফ বলেন, তদন্ত টিমকে সাত কর্মদিবসের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়ার পর এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

প্রসূতির পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়, সাঘাটা উপজেলার ভরতখালি ইউনিয়নের লিমন মিয়ার অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী রশিদা বেগমকে গত শনিবার সকাল ১০টায় প্রসবব্যথা নিয়ে উপজেলার বোনারপাড়ার প্রাইভেট ক্লিনিক ‘মাতৃসদন কেন্দ্রে’ ভর্তি করা হয়। সেখানে থাকাকালে ডাক্তার এবং নার্স ছাড়া বিনা চিকিৎসায় সারা দিন ওই ক্লিনিকে তাকে ভর্তি করে রাখা হয়। একপর্যায়ে প্রসূতির শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি ঘটলে বিকেল ৪টার দিকে ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্রের মালিক আজগর আলী নিজেই একটি রুমে নিয়ে গিয়ে প্রসব করানোর চেষ্টা করেন।

স্থানীয়রা জানান, আজগর আলী মূলত মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট। নিজেকে চিকিৎসক পরিচয় দিয়ে এই ক্লিনিকটি চালাচ্ছিলেন তিনি। ক্লিনিকটির সরকারি অনুমোদন নেই। এখানে নেই কোনো চিকিৎসক ও নার্স। চিকিৎসক না হয়েও অন্তঃসত্ত্বা নারীদের চিকিৎসা, প্রসব ও আলট্রাসনোগ্রাম করে আসছেন তিনি।

এদিকে কথিত চিকিৎসক আজগর আলী স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেছেন, আগে থেকেই ওই নারীর পেটে মৃত বাচ্চা ছিল। রোগীর স্বজনদের অনুরোধেই তিনি বাচ্চাটিকে বের করে আনার চেষ্টা করেন।


নিউজ টি শেয়ার করুন..

সর্বশেষ খবর

আরো খবর