আজ শনিবার। ১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ। ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ। ৯ই জিলকদ, ১৪৪৫ হিজরি। এখন সময় বিকাল ৪:০৬

লক্ষ্মীপুরে বছরে ৭০ জনের আত্মহত্যা

লক্ষ্মীপুরে বছরে ৭০ জনের আত্মহত্যা
নিউজ টি শেয়ার করুন..

আনোয়ার হোসেন :

লক্ষ্মীপুরে গত ৫ বছরে আত্মহত্যা করেছেন প্রায় তিন শতাধিক নারী-পুরুষ। পুলিশের হিসাব অনুযায়ী প্রতিবছরে গড়ে ৭০ জন এই অস্বাভাবিক মৃত্যুর পথ বেছে নিয়েছেন । জেলা পুলিশের হিসেবে গত ৬ মাসে লক্ষ্মীপুরে আত্মহত্যা করছেন ৩৯ জন। আর গত এক বছরে এই মৃত্যুর পথে পা দিয়েছেন ৭৪ জন। ২০১৭ সালে এই সংখ্যা ছিল ৬০জন। আর গত ৫ বছরে এর সংখ্যা দাড়িয়েছে ৩৭৫ জন।
আত্মহত্যাকারীদের মধ্যে বেশিরভাগই ১৮ থেকে ৩০ বছর বয়সী।

আত্মহত্যার প্রবণতা বাড়ার কারণ হিসেবে সামাজিক বিভিন্ন সমস্যাকে দায়ী করছেন সমাজবিজ্ঞানী ও নারী নেত্রীরা। তারা বলছেন, যৌতুক, পারিবারিক নির্যাতন, সম্পর্কের জটিলতা, অর্থনৈতিক সংকট, সামাজিক যোগাযোগ ও দ্রুত নগারয়ণ তৈরি করছে ব্যাক্তির মানসিক সমস্যা।

এ বিষয়ে লক্ষ্মীপুর সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সহযোগী অধ্যাপক জাকির হোসেন শিকদার বলেন, ‘সৃষ্টির শুরু থেকে নারীরা সমাজে অবহেলিত একটা শ্রেণি। আত্মহত্যা নিরসনের জন্য নৈতিক শিক্ষার উন্নয়ন, সমাজে শিক্ষাবৃদ্ধি এবং সম্পদ সঠিকভাবে বন্টন, এসবের মধ্য দিয়ে আত্মহত্যার প্রবণতা কমে আসবে। অন্যথায় এটা বাড়তে থাকবে।’

জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সুলতানা জোবেদা খানম বলেন, ‘মানসিক সমস্যা, পারিবারিক সমস্যা, বাল্যবিবাহ, যৌতুক, ইভটিজিং, সিদ্ধান্তহীনতা এবং অপবাদ ইত্যাদি কারণে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেই চলছে। ইতিমধ্যে এর প্রবণতা কমাতে মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে বিভিন্নস্থানে কাউন্সেলিং করা হচ্ছে।’

এ ব্যাপারে জেলা পুলিশ সুপার আ স ম মাহতাব উদ্দিন বলেন, ‘বর্তমান সময়ে বেশিরভাগ শিক্ষার্থী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও স্বপ্নের জগতে বসবাস করে। স্বপ্নের বাস্তবায়ন না হওয়ায় আত্মহত্যার প্রবণতা বেড়ে গেছে। ৫বছর আগের আত্মহত্যার পরিসংখ্যান ও বর্তমান পরিসংখ্যান এক নয়। আত্মহত্যার বাড়ার মূল কারণ, পাওয়া না পাওয়া এবং সামাজিক ও পারিবারিক অস্থিরতা।’

তিনি বলেন, ‘আঠারো বছরের আগে কাউকে ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করতে দেওয়া উচিত নয়। এ ব্যাপারে প্রথমে পারিবারিকভাবে সচেতন হতে হবে। সমাজের সকল স্তরের মানুষকে আত্মহত্যার প্রবণতা প্রতিরোধে এগিয়ে আসতে হবে।’


নিউজ টি শেয়ার করুন..

সর্বশেষ খবর

আরো খবর