আজ রবিবার। ৩রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ। ১৯শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ। ২১শে শাবান, ১৪৪৫ হিজরি। এখন সময় রাত ৪:৪৫

হবিগঞ্জের তিন উপজেলায় বজ্রপাতে নিহত ৩

হবিগঞ্জের তিন উপজেলায় বজ্রপাতে নিহত ৩
নিউজ টি শেয়ার করুন..

আজিজুল ইসলাম সজীব,হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ , চুনারুঘাট ও মাধবপুরে বজ্রপাতে এক নারী চা শ্রমিক এবং দুই পুরুষের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া ভারী বর্ষণে জেলার বিভিন্ন স্থানের নিম্নাঞ্চল তলিয়ে গেছে।

নিহতরা হলেন- চুনারুঘাটের আমু চা বাগানের প্রদীপ উড়াও’র মেয়ে সীমা উড়াও (১৮), নবীগঞ্জেরের ৮ নম্বর ইউনিয়নের গুজাখাইড় গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের পুত্র সিজিল মিয়া (৪৫) ও মাধবপুর বুল্লা গ্রামের জিতু মিয়ার পুত্র ফয়সল মিয়া (৩৭)।

শুক্রবার (২৪ মে) সকালে চুনারুঘাট উপজেলার ঘনশ্যামপুর গ্রামে ধান রোপন করে বাড়ি ফেরার পথে আমু চা বাগান পুলপারের প্রদীপ উঁরাওর কন্যা সীমা উঁরাও বজ্রপাতে নিহত হয়েছে।

বেলা এগারোটায় অতিরিক্ত বৃষ্টি নামলে কাজ ফেলে বাড়ী ফিরার পথেই বজ্রপাতের কবলে তার মৃত্যু হয়।

এ ছাড়া নবীগঞ্জ উপজেলার পল্লীতে মাছ ধরতে গিয়ে বজ্রপাতে সিজিল মিয়া (৪৫) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। ২৪ মে শুক্রবার সকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের গুজাখাইড় গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। সিজিল মিয়া ওই গ্রামের মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে।

নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন জানান, সকালে বৃষ্টির সময় বাড়ির পার্শ্ববর্তী হাওরে মাছ ধরতে যান সিজিল মিয়া। এ সময় বজ্রাঘাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

মাধবপুর উপজেলার ছানকা বুল্লা গ্রামে জমিতে ধান কাটতে যান ফয়সল মিয়া ও তার সঙ্গীরা। কর্মরত অবস্থায় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলে মারা যান ফয়সল। এসময় আহত হন একই গ্রামের মাহফুজ মিয়ার ছেলে খোকন মিয়া ও কালা মিয়ার ছেলে সামছু মিয়া।

হবিগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ফজলুল জাহিদ পাভেল বজ্রপাতে নিহতদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি আরো বলেন, নিহতদের সব তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। প্রত্যেকের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে সরকারি সহায়তা দেওয়া হবে।


নিউজ টি শেয়ার করুন..

সর্বশেষ খবর

আরো খবর